বাবুর হাট(Babur Haat) , উত্তর ২৪ পরগনা – ৪৮ কিমি কলকাতা হইতে :

বাড়ি থেকে অফিস আর অফিস থেকে বাড়ি এই জীবন যদি  আপনার কাছে একঘেয়ে হয়ে ওঠে , তাহলে আজই চলে আসুন বাবুর হাটে। কলকাতা থেকে মাত্র ৫১ কিলমিটার দূরত্বে অবস্থিত এই গ্রামাঞ্চল আপনার সপ্তাহান্তের ছুটি কাটানোর জন্য একদম উপযুক্ত স্থান। এই স্থানের মূল আকর্ষন হল, মাছের ভীরিস যেখানে বিভিন্ন ধরনের সুস্বাদু মাছের চাষ হয়। এছাড়াও এখানকার দিগন্ত বিস্তৃত কৃষিজমি,সবজি বাগান, আম বাগান, খেজুর বাগান,পুকুর, গ্রামীন বাড়ি, স্থানীয় মন্দির এই সবকিছু মিলেমিশেই আপনাকে এক অতি সুন্দর মনোরম পরিবেশ উপহার দেবে যা আপনাকে শহুরে কর্মব্যাস্ত জীবনের চাপ থেকে অনেকটাই আরাম দেবে। এই গ্রামীন অঞ্চলে শহুরে জীবনের মতো ব্যস্ততা হয়ত নেই, তবে এখানকার প্রতিটি মানুষ যেন অত্যন্ত সাদামাটা ও স্বাভাবিক ছন্দে নিজেদের মত করে জীবন যাপন করে ,আর এই দৃশ্যই এখানকার পর্যটকদের মনকে শান্ত করে তুলতে সাহায্য করে।

বাবুর হাটের দর্শনীয় স্থান:

বাবুর হাট তার মনোরম প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের জন্য সুপরিচিত। এখানে রয়েছে প্রচুর মাছ ধরার হ্রদ ও ভীরিস। এই হ্রদগুলি আয়তনে বিশালাকৃতির । এখানকার স্থানীয় কৃষকরা এই ভীরিসের নিত্য রক্ষনাবেক্ষন করেন। এই ভীরিসগুলিতে বিবিধ প্রজাতির বাংলার মাছ চাষ করা হয় এবং কৃত্রিম পদ্ধতিতে মৎস প্রজননেরও সুবন্দোবস্ত রয়েছে। এখানকার কৃষিজমিতে বাঁধাকপি , ফুলকপি, আলু ও ভেন্ডির মতো

নানাধরনের শাকসবজির চাষ হয়। এই গ্রামাঞ্চলের পথ ধরে হাঁটতে থাকলে আপনি গ্রামীন জীবন যাত্রা তথা গ্রাম্য সস্কৃতির সাথে খুব সহজেই পরিচিত হতে পারবেন। চাষের ক্ষেতে কর্মরত কৃষক, হ্রদে জাল দিয়ে মাছ ধরা, ঢেঁকিতে চাল ছাঁকা, ঝুড়ি বোনা ইত্যাদি কর্মকান্ডের ছবি আপনি খুব সহজেই ক্যামেরা বন্দি করতে পারবেন।

বাবুর হাটে করণীয় বিষয়:

বাবুর হাটে এসে আপনি নিজের মনের দরজা খুলে দিয়ে নিজেকে প্রকৃতির হাতে সমর্পণ করে দিতেই পারেন, এটাই এই পর্যটন স্থানের গুরুত্ব । পর্যটকরা এখানে গ্রামের পথ ধরে হেঁটে , মাছ ধরে, নদীপথে নৌকা চালিয়ে বেশ অনেকটা আনন্দ উপভোগ করতে পারেন। আপনি চাইলে এখানে এসে নিজের পরিবার বা বন্দুবান্ধবের সাথে মাছ ধরার প্রতিযোগিতারও ব্যবস্থা করতে পারেন। এছাড়াও বাবুর হাটে এসে আপনি নদীর ধারে ঘুরে বেড়িয়ে নিজের ছুটি উপভোগ করতে পারবেন। এখানকার স্থানীয় গ্রামের মাঠে আপনি একটি ছোটখাটো বনভোজনের ব্যবস্থাও করতে পারবেন। এখানকার দিগন্ত বিস্তৃত মাঠগুলি ক্রিকেট ব্যাডমিন্টন জাতীয় বিভিন্ন আউটডোর গেম খেলার জন্য বেশ উপযুক্ত স্থান। এখানকার রিসর্টে বিলাসবহুল বোটিং ও সুইমিং পুলের ব্যবস্থা রয়েছে। এই সুইমিং পুলে নেমে আপনি অনায়াসে নিজের সাঁতার চর্চা চালিয়ে যেতেই পারেন ।

বাবুর হাটের নিকটবর্তী আকর্ষণ:

বাবুর হাটের কাছাকাছি আকর্ষনগুলির মধ্যে অন্যতম হল, মালাঞ্চা গ্রাম যা মাত্র ১৫ কিলোমিটার দূরত্বে অবস্থিত। এই গ্রামটি মাছ ধরার জন্য বিশেষ খ্যাতি অর্জন করেছে। এই গ্রামেই রয়েছ একাধিক বিখ্যাত মাছের বাজার। এখানকার মাছের বাজারে খুব কম দামে বাংলার সেরা ও স্থানীয় মাছ পাওয়া যায়। এই মাছগুলি সবই টাটকা নদী থকে ধরা হয় ও বাজারে নিয়ে গিয়ে সরাসরি ক্রেতাকে বিক্রি করা হয়। বিদ্যাধরী ও ইছামতি এই দুটি নদীর সংগমস্থলে অবস্থিত এই মালাঞ্চা গ্রাম। মালাঞ্চা বিদ্যাধরী নদীর তীর থেকে আপনি সূর্যাস্তের দৃশ্য উপভোগ করতে পারবেন। এগুলি ছাড়াও এখানে রয়েছে একাধিক ইঁটাভাটা যার লম্বা টাওয়ার গুলি নদীর তীর বরাবর সারিবদ্ধ ভাবে দাঁড়িয়ে আছে। আপনি যদি নদীগলি অতিক্রম করে অন্য তীরবর্তী গ্রামে যেতে চান তবে আপনি কান্ট্রি – বোটিং এও যেতে পারেন।

বাবুর হাট কিভাবে পৌঁছাবেন:

বাবুর হাট কলকাতার সাথে সড়কপথে ভালভাবে যুক্ত। আপনি ভাড়া করা গাড়ি ভাড়া করতে পারেন বা মিনাখা থেকে বাস পরিষেবা গুলি বসন্তী হাইওয়ে হয়ে বাবুর হাট পর্যন্ত পৌঁছাতে পারেন। বাবুর হাট হয়ে যাওয়া কলকাতা এবং মালাঞ্চার মধ্যে বাস পরিষেবাও পাওয়া যায়।

বাবুর হাট দেখার সেরা সময়:

বাবুর হাট দেখার সেরা সময় শীতকাল এবং গ্রীষ্মের শুরুতে যখন তাপ কম থাকে। যাইহোক, যেহেতু এসি রুমগুলি উপলব্ধ এটি সারা বছর ধরে সপ্তাহান্তের জন্য একটি দুর্দান্ত পলায়ন।

বাবুর হাট- এ থাকা ব্যবস্থা এবং খাওয়ার সুবিধা:

বাবুর হাটের আমাদের রিসোর্টে থাকার সুবিধা রয়েছে। রিসর্টটি সমস্ত ধরণের আধুনিক সুবিধা এবং পরিষেবাদিয়ে সজ্জিত যার মধ্যে রয়েছে শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ, টেলিভিশন, লাউঞ্জ এলাকা, ডাইনিং এরিয়া, বড় বিছানা সহ প্রশস্ত শয়নকক্ষ, সম্পূর্ণ রূপে সজ্জিত বাথরুম, বিলাসবহুল আসবাবপত্র। রিসর্টসুইমিং পুল, চিক আউটডোর বসার ব্যবস্থা সহ প্রশস্ত বহিরঙ্গন লন, সুন্দর ফুল বাগান, শিশু পার্ক, পার্কিং লট, বোটিং সুবিধা, ডিনিং হল, কনফারেন্স রুম এবং অ্যাংলিং সুবিধা রয়েছে। রান্নাঘরটি ঐতিহ্যবাহী রন্ধনপ্রণালী এবং অন্যান্য ধরণের মহাদেশীয় খাবারও সরবরাহ করে। রিসর্টটি ডে পিকনিক গ্রুপ, সপ্তাহান্তের পারিবারিক গ্রুপ এবং কর্পোরেট ইভেন্ট এবং পারিবারিক বিষয়গুলির সন্ধানে অতিথিদের মতো সমস্ত ধরণের ভ্রমণঅতিথিদের বিনোদন দেয়।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published.